লাইফষ্টাইল

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায় মাশরুম

‘মাশরুম’ হচ্ছে ব্যাঙের ছাতার মতো এক ধরণের ছত্রাক জাতীয় গাছ। মাশরুম ও ব্যাঙের ছাতা দেখতে একই রকম হলেও এদের মাঝে অনেক পার্থক্য আছে। বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চাষকরা মাশরুম অত্যন্ত পুষ্টিকর খাবার।

মাশরুমে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। এছাড়া এতে সেলিনিয়াম নামে এক ধরনের উপাদান থাকে,যা অনেক ফল কিংবা শাকসবজিতেও থাকে না। আর সেলিনিয়াম শরীরে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

মাশরুম রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। এ কারণে এটি ডায়বেটিস রোগীদের জন্য উপকারী। একই সঙ্গে মাশরুমে প্রয়োজনীয় ফাইবারও থাকে। এ কারণে এটি শরীরে হজমশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

মাশরুমে থাকা ফাইবার, পটাশিয়াম এবং ভিটামিন সি হৃদরোগের জন্য খুবই উপকারী। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করতে পটাশিয়াম এবং সোডিয়াম একসঙ্গে কাজ করে। মাশরুমে বেশি পরিমাণে পটাশিয়াম এবং কম পরিমাণ সোডিয়াম থাকায় এটি উচ্চ রক্তচাপ  হ্রাস করে এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

মাশরুমে থাকা সেলেনিয়াম শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং যেকোন ধরনের সংক্রমণ সারাতে কাজ করে।

মাশরুমে বিদ্যমান দুই ধরনের ফাইবার ক্ষুধা কমাতে সাহায্য করে। মাশরুম খেলে অনেকক্ষণ পেট ভরা অনুভূত হয়। এ কারণে এটি ওজন নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রেও ভূমিকা রাখে।

Leave a Reply