আন্তর্জাতিক

ইরানে সামরিক কুচকাওয়াজে হামলা: ৩ রাষ্ট্রদূতকে তলব

ইরাক সীমান্তের কাছে ইরানের সামরিক কুচকাওয়াজে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে শিশু ও নারীসহ অন্তত ২৯ জনকে হত্যার সঙ্গে জড়িতদের নির্মূলের অঙ্গীকার করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।

ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আহবাজ নগরীতে শনিবারের ভয়ঙ্কর এই হামলার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট গ্রুপ (আইএস)। তবে ইরানের কর্মকর্তারা এই ঘটনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত বিদেশি গোষ্ঠীকে দায়ী করেছে।

সামরিক কুচকাওয়াজে হামলার জন্য ইরান দেশটিতে ডাচ ও ডেনিস রাষ্ট্রদূত এবং বৃটিশ চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্সকে তলব করেছে।

ইরানের সরকারি সংবাদ সংস্থা ইরনার কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে রোববার বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হামলায় জড়িত সন্ত্রাসী গ্রুপের কিছু সদস্যকে এই দেশগুলো ‘আশ্রয় দেওয়ায়’ রাষ্ট্রদূতদের তলব করে কড়া প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাশেমীর বরাত দিয়ে ইরনা জানায়, হামলায় জড়িত ‘অপরাধী ও তাদের সহযোগীদের’ বিচারের মুখোমুখি করতে তাদের ইরানের কাছে হস্তান্তরের জন্য ডেনমার্ক ও নেদারল্যান্ডের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

কাশেমী বলেন, সন্ত্রাসী গ্রুপগুলো ইউরোপের মাটিতে যতক্ষণ সন্ত্রাসী কার্যক্রম সংঘটিত না করছে ততক্ষণ ইউরোপীয় ইউনিয়নে তাদের কালো তালিকাভুক্ত না করা অগ্রহণযোগ্য।

বৃটিশ রাষ্ট্রদূতের অনুপস্থিতিতে চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্সকে তলব করে বলা হয়, লন্ডনভিত্তিক টিভি নেটওয়ার্কের মাধ্যমে আল-আহবাজী সন্ত্রাসী গ্রুপের মুখপাত্রের এই হামলার দায় স্বীকার করার সুযোগ ও প্রশ্রয় প্রদান গ্রহণযোগ্য নয়।

তিনি এই ঘটনার জন্য দায়ী একটি গ্রুপের কথা উল্লেখ করে বলেন, ইরানের প্রধান প্রতিদ্বন্ধি সৌদি আরব তাদের মদদ দিচ্ছে।