জাতীয়

ঢাবিতে কোটা আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি মিছিল

কোটা প্রথার সংস্কারের প্রজ্ঞাপনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। অপরদিকে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছেন।

মঙ্গলবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল ও কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের মিছিল থেকে পাশাপাশি স্লোগান দিতে দেখা গেছে।

ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাদের স্লোগানে বলেন, আওয়ামী লীগের সরকার বারবার দরকার। এ সময় তারা ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডের সরকারি চাকরিতে কোটা না রাখার সুপারিশকে স্বাগত জানান।

অপরদিকে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে প্রায় দুই ঘণ্টা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কোটা প্রথার সংস্কারের প্রজ্ঞাপনের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। মিছিলে প্রায় তিন শতাধিক ছাত্র ছাত্রী অংশ নেন।

মন্ত্রি পরিষদ সচিবের প্রথম ও ‍দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের সুপারিশকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন আন্দোলনকারীরা। তবে দ্রুত তারা এই সুপারিশের বাস্তবায়ন চায়। সুপারিশ বাস্তবায়নে তালবাহানা করলে ছাত্র সমাজ আবার রাজপথে নেমে আসবে বলে ঘোষণা দেন কোটা সংস্কার আন্দোলনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন।

দুপুরে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত এক সমাবেশে হাসান আল মামুন এই ঘোষণা দেন।

হাসান আল মামুন বলেন, মন্ত্রিপরিষদ সচিব কর্তৃক যে সুপারিশ করা হয়েছে আমরা এটিকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছি। পাশাপাশি তৃতীয় এবং চতুর্থ শ্রেণির চাকরিতে যে কোটা প্রথা রয়েছে তার যৌক্তিক এবং সহনীয় সংস্কার চাচ্ছি।

অপরদিকে কোটা বাতিলের বিষয়ে সরকারের কমিটির সুপারিশকে স্বাগত জানিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে মিছিল করেন ছাত্রলীগের বিভিন্ন হলের নেতাকর্মীরা।