সারাদেশ

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনে কাজ করছে ভারত: শ্রিংলা

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, বাংলাদেশ এতো বিপুল সংখ্যক রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। কিন্তু এই বোঝা বাংলাদেশের পক্ষে দীর্ঘদিন বহন করা সম্ভব নয়। রোহিঙ্গাদের  দ্রুত ও নিরাপদে স্বদেশে প্রত্যাবাসনে ভারত সরকার বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

সোমবার দুপুরে উখিয়ার বালুখালী শরণার্থী ক্যাম্প-১২ এ রোহিঙ্গাদের মধ্যে জ্বালানির জন্য কেরোসিন তেল ও স্টোভ চুলা বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, ভারত সরকার মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের জন্য টেকসই উন্নয়নের উদ্যোগ নিয়েছে। সেখানে রোহিঙ্গাদের জন্য ২৫০টি ঘর নির্মাণ করবে ভারত। ইতিমধ্যে ৫০টি ঘরের নির্মাণ কাজ শুরু  হয়েছে।

ভারত সরকার ও ভারতীয় জনগণের অর্থায়নে ২০ হাজার  রোহিঙ্গা পরিবারকে ১১ লাখ লিটার কেরোসিন ও ২০ হাজার স্টোভ দেওয়া হচ্ছে। এসব কেরোসিন ও স্টোভ ২০ হাজার রোহিঙ্গা পরিবারের ৫ মাসের জ্বালানির চাহিদা মেটাবে।

সোমবার দুপুরে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চোধুরী মায়া এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব শাহ কামাল, বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান হাফিজ আহমেদ মজুমদার, শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম প্রমুখ।