জাতীয়প্রধান সংবাদ

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির চাকরিতে কোটা না রাখার সুপারিশ

প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো ধরনের কোটা না রাখার করার সুপারিশ করেছে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের নেতৃত্বে গঠিত কোটা পর্যালোচনা কমিটি।

আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহে মন্ত্রিপরিষদ অনুমোদন দিলে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি হতে পারে।

সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আমরা কোটা নিয়ে প্রতিবেদন আজকে জমা দিয়েছি। নবম থেকে ১৩তম গ্রেডে (প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণি) নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনো কোটা থাকবে না।

উল্লেখ্য, বর্তমানে সরকারি চাকরিতে নিয়োগে ৫৬ শতাংশ পদ বিভিন্ন কোটার জন্য সংরক্ষিত। বাকি ৪৪ শতাংশ নেওয়া হয় মেধা যাচাইয়ের মাধ্যমে।

গত ফেব্রুয়ারিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’ এর ব্যানারে শুরু হওয়া এ আন্দোলন সারা বাংলাদেশেই ছড়িয়ে পড়ে।

পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষও হয় আন্দোলনকারীদের। গ্রেফতার হন আন্দোলনকারী অনেক নেতা। আন্দোলন চলাকালে ১১ এপ্রিল সংসদে কোটা বাতিলের ঘোষণা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।