ক্রীড়াঙ্গন

‘আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ে আমরা এশিয়ার তৃতীয় সেরা দল’

২০১২, ২০১৪ ও ২০১৬ সাল, টানা তিন বছর এশিয়া কাপের আয়োজক ছিল বাংলাদেশ। স্বাগতিক দর্শকদের সমর্থন আর ঘরের মাঠের কন্ডিশনকে কাজে লাগিয়ে এই তিন আসরের মধ্যে দুবারই ফাইনালের টিকেট কাটে বাংলাদেশ। একবার তো শিরোপার খুব কাছাকাছিও পৌঁছে গিয়েছিল বাংলাদেশ, যদিও দুই রানে হারে স্বপ্ন ভাঙে স্বাগতিকদের।

সময়ের পরিক্রমায় আবারও এশিয়া কাপের লড়াই। রাত পোহালেই এশিয়া কাপের ১৪তম আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স উপহার দেওয়া বাংলাদেশ দেশের বাইরের এশিয়া কাপে কখনই ভালো করতে পারেনি। এবার কি মাশরাফিবাহিনী পারবে ব্যর্থতার সেই বৃত্ত ভাঙতে?

বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা অবশ্য আশাবাদী। তার মতে, আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ এশিয়ার তৃতীয় সেরা দল। এই অনুপ্রেরণা নিয়েই তারা এশিয়ান ক্রিকেটের শ্রেষ্ঠত্যের লড়াইয়ে মাঠে নামবে। সে সঙ্গে বাংলাদেশ অধিনায়ককে অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে এশিয়া কাপের গত তিন আসরের পারফরম্যান্সও।

এ নিয়ে মাশরাফির ভাষ্য, ‘এশিয়া কাপের গত তিনটি আসরে আমাদের বেশ কিছু ভালো স্মৃতি রয়েছে। শেষ তিনটি আসরের দুটিতেই আমরা ফাইনাল খেলেছিলাম। আইসিসি র‍্যাঙ্কিংয়ে আমরা এশিয়ার তৃতীয় সেরা দল। এটাই আমাদেরকে অনেক বেশি অনুপ্রেরণা এবং উৎসাহ যোগাচ্ছে, যেন বেশ কয়েকটি কঠিন এবং শক্তিশালী দলের বিপক্ষে আমরা খেলতে পারি।’

শুধু তাই নয়, এই এশিয়া কাপকেই ২০১৯ সালের বিশ্বকাপের প্রস্তুতির মঞ্চ হিসেবে ভাবছেন মাশরাফি। এ নিয়ে বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আইসিসি বিশ্বকাপ এমন একটি টুর্নামেন্ট যেখানে সবাই বেশ উৎসাহ নিয়ে অংশগ্রহণ করতে চায়। এশিয়া কাপ আমাদেরকে আগামী বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুতি নিতে অনেক বেশি সহযোগিতা করবে বলে বিশ্বাস করি। কারণ, এশিয়া কাপ থেকেই আগামী বিশ্বকাপ পর্যন্ত আমাদেরকে বেশ কয়েকটি সিরিজে অংশ নিতে হবে।’