বিনোদন

প্রিয় অবসর: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আমাদের নানা রকম কাজে ব্যস্ত থাকতে হয় সারাদিন। এরই মধ্যে যদি হঠাৎ কিছুটা অবসর মেলে, তখন হাজারটা প্রশ্ন মাথায় ঘোরে। কোথায় যাব, কোথায় গেলে প্রিয় অবসরটা আনন্দে কাটানো যাবে, কোন সিনেমা কোথায় দেখা যায়, তার সময়সূচি কী?

আর যদি কোথাও না যাই তাহলে ঘরে বসে অবসর কাটাব কীভাবে? এসব প্রশ্নের উত্তর সহজেই খুঁজে পেতে চোখ রাখুন প্রিয় অবসর বিভাগে। প্রতিদিন এই বিভাগে চোখ বুলিয়ে আপনি জেনে নিতে পারেন ঢাকার সিনেমা ও বিনোদনের যেকোনো অনুষ্ঠানের সময়সূচি।

সিনেপ্লেক্স,বসুন্ধরা সিটি, ঢাকা
পোড়ামন ২, প্রদর্শনী : ১০-৪০, ৪-৩০, ভাইজান, প্রদর্শনী : ১-৪০, ৭-৩০, দ্য নান, প্রদর্শনী : ১১-০০, ১১-৩০, ১-১০ ১-৪০, ৩-২০, ৫-১০, ৫-৩০, ৭-৩০, ৭-৪০, মাইল ২২, প্রদর্শনী : ১০-৩০, ৩-০০, ৭-২৫, আলফা [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১-৫০, ৬-৫০, মিশন : ইমপসিবল-ফল আউট [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১০-৫০, ২-০০ ৪-০০, ৭-০০, অ্যান্ট-ম্যান অ্যান্ড দ্য ওয়াসপ [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১২-৩০, ৫-০০, জুরাসিক ওয়ার্ল্ড : ফলেন কিংডম [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১১-১০, ৪-১০।

ব্লকবাস্টার সিনেমাজ, যমুনা ফিউচার পার্ক, ঢাকা
ক্যাপ্টেন খান, প্রদর্শনী : ১-৪৫, ১-৫০, ৭-১০, কিন, প্রদর্শনী : ১১-৩০, ২-৩০, ৪-৫০, ৭-১৫, আলফা [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১১-৩০, ৪-৪৫, ৮-০০, দ্য স্পাই হু ডাম্পড মি, প্রদর্শনী : ১১-৩০, ২-০০, ৪-৪৫, মিশন : ইমপসিবল-ফল আউট [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১১-৩০, ১২-৩০ ১-৪৫, ৪-৪৫, ৭-০৫, জুরাসিক ওয়ার্ল্ড : ফলেন কিংডম [থ্রিডি], প্রদর্শনী : ১২-৪৫, ৩-৩০, ৬-২০, ইনক্রেডিবলস ২, প্রদর্শনী : ৩-৩০, ৬-১৫।

চিড়িয়াখানা,সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে
চিড়িয়াখানা। প্রতিদিনের মতোই সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে চিড়িয়াখানা।

কেন্দ্রীয় শিশুপার্ক, শাহবাগে অবস্থিত কেন্দ্রীয় শিশুপার্কটি দুপুর ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। সাপ্তাহিক বন্ধ রবিবার।

জাতীয় জাদুঘর ও স্বাধীনতা জাদুঘর, সকাল ১০টা ৩০ মিনিট থেকে বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত খোলা থাকবে জাতীয় জাদুঘর ও স্বাধীনতা জাদুঘর।

শিশুমেলা, রাজধানীর শ্যামলীর শিশুমেলা আশপাশ এলাকার শিশু-কিশোরদের প্রধান বিনোদন কেন্দ্র। এখানে আছে ৪০টির মতো রাইড। পরিবারের সবার চড়ার মতো আছে ১২টি রাইড। সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এটি খোলা থাকবে।

লালবাগ কেল্লা, এটি বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটনস্থল। পুরান ঢাকার ভিড় ঠেলে কেল্লার সদর দরজা দিয়ে ঢুকলেই চোখে পড়বে পরী বিবির মাজার। এখানে আছে দরবার হল, নবাবের হাম্মামখানা। আছে শাহী মসজিদ। রয়েছে একটি জাদুঘরও। খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত।

আহসান মঞ্জিল, পুরান ঢাকার ইসলামপুরে বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে মোগল আমলের ঐতিহ্য নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে আহসান মঞ্জিল। খোলা থাকবে সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য প্রবেশমূল্য জনপ্রতি ১৫ টাকা। ১২ বছরের নিচের শিশুদের ক্ষেত্রে পাঁচ টাকা আর প্রতিবন্ধীদের জন্য জাদুঘর উন্মুক্ত।

ফ্যান্টাসি কিংডম, থিমপার্কগুলোর মধ্যে বিশেষ জনপ্রিয় ফ্যান্টাসি কিংডম। ঢাকার অদূরে আশুলিয়ায় গড়ে ওঠা এই বিনোদন কেন্দ্র ঈদের প্রথম সাতদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। বড়দের প্রবেশমূল্য ৪০০ টাকা। ৩ ফুটের নিচে শিশুদের জন্য কোনো টিকিট লাগবে না। রাইডে চড়ার জন্য কোনো প্যাকেজ থাকছে না। সাঁতার কাটা যাবে ওয়াটার কিংডমে।

নন্দন পার্ক, সাভারের নবীনগরের নন্দন পার্কে নানা রকম রাইড আর ওয়াটার ওয়ার্ল্ডের পাশাপাশি আছে খুদে চিড়িয়াখানাও। ঈদ উপলক্ষে কনসার্টের ব্যবস্থা থাকছে এখানে। নন্দন পার্ক খোলা থাকবে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত।

যমুনা ফিউচার পার্ক, যমুনা ফিউচার পার্ক ঢাকা শহরের অভিজাত জায়গা কুড়িল, বারিধারা, প্রগতি সরণি ও গুলশানের মতো জায়গার কাছাকাছি। এটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এর খুব কাছে অবস্থিত। যমুনা ফিউচার পার্কে থাকছে নানা রকম মজার রাইড, ব্লক বাস্টারে রোমাঞ্চকর মুভি দেখার সুযোগ। এছাড়া রয়েছে শিশুদের জন্য বিভিন্ন ধরনের আয়োজন।

তামান্না ওয়ার্ল্ড ফ্যামিলি পার্ক, নতুন নতুন চমকপ্রদ রাইডস ও মজার সব খেলনা উপভোগের জন্য আপনার আনন্দকে আরো প্রাণবন্ত করতে পার্ক সাজানো হয়েছে নতুন রূপে। তাই সপরিবারে ঘুরে আসতে পারেন তামান্না ওয়ার্ল্ড ফ্যামিলি পার্ক থেকে। এটি ঢাকার মিরপুর-১ এ অবস্থিত। খোলা থাকবে সকাল ৯টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্ক, ওয়ান্ডারল্যান্ড পার্ক ঢাকার সায়েদাবাদ রেলক্রসিংয়ের পাশে অবস্থিত। খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত। এখানে ১৩টি রাইডের মধ্যে রয়েছে ফ্লাওয়ার কাপ, মিনি ক্যাব, বেবি কার, টয় ট্রেন, ভয়েজার বোর্ড, টুইস্টার, সুপার চেয়ার, মেরি-গো-রাউন্ড, ওয়ান্ডারল্যান্ড হুইল ইত্যাদি।