আন্তর্জাতিক

১০ লাখ উইগুর মুসলিম চীনের বন্দিশিবিরে

চীনের ১০ লাখ উইগুর মুসলিমকে রাজনৈতিক শিবিরে আটকে রাখা হয়েছে অভিযোগ করেছে জাতিসংঘ। কয়েক মাস ধরেই শিনচিয়াং প্রদেশ থেকে উইঘুরসহ অন্যান্য মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের আটকের খবর সামনে আসছে।

শুক্রবার জেনেভায় চীনের ওপর জাতিসংঘ মানবাধিকার বিষয়ক কমিটির দুই দিনের বিশেষ সভায় এমন অভিযোগ তুলেছে সংস্থাটির জাতিগত বৈষম্য বিষয়ক কমিটি।

কমিটির সদস্য গে ম্যাকডুগাল বলেন, এতো বিপুলসংখ্যক উইঘুর আটকের ঘটনা উদ্বেগজনক। চীনা কর্তৃপক্ষ স্বায়ত্তশাসিত উইঘুর প্রদেশকে কার্যত ‘বিশাল একটি বন্দিশিবিরে’ পরিণত করেছে।
তিনি বলেন, ‘এমন খবর তিনি পেয়েছেন যে চীনা কর্তৃপক্ষ স্বায়ত্তশাসিত উইগুর প্রদেশকে কার্যত বিশাল একটি বন্দীশিবিরে’ রূপান্তরিত করেছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, হিউম্যান রাইটস ওয়াচসহ মানবাধিকার সংগঠনগুলোও জাতিসংঘের কাছে এ ব্যাপারে প্রতিবেদন দিয়েছে। এসব প্রতিবেদনে উইঘুর মুসলিমদের গণহারে আটকের অভিযোগ তোলা হয় চীনের বিরুদ্ধে।

চীন এ অভিযোগের তাৎক্ষণিক জবাব দেয়নি। চীনা প্রতিনিধিদলের পক্ষ থেকে বলা হয়, সোমবার এই অভিযোগের জবাব দেয়া হবে। তবে এর আগে বিভিন্ন সময় চীন বলেছে, এ ধরণের বন্দী শিবিরের কোনো অস্তিত্ব নেই।