বিনোদন

বিপাশার গালে কারিনার থাপ্পড়

বিপাশা বসুকে থাপ্পড় মারলেন কারিনা কাপুর? তাও আবার প্রকাশ্যে? অবাক লাগছে শুনতে? ‘আজনবি’ সিনেমার সেটে যখন দুই নায়িকার লড়াই শুরু হয়, তখন কিন্তু বেশ কিছুটা ভয়ই পেয়ে গিয়েছিলেন পরিচালক আব্বাস মস্তান।

বিষয়টি খোলসা করেই বলা যাক তাহলে। কাপুর খানদানের সদস্য হিসেবে কারিনা কাপুর বরাবরই বেশি নম্বর পেয়ে এসেছেন। সে দিদি কারিশ্মা কাপুরের সঙ্গে তার তুলনার ক্ষেত্রে হোক কিংবা ভাই রণবীর কাপুরের ক্ষেত্রে। অভিনয় হোক কিংবা নাচ, সবকিছুতেই কারিনা কাপুর এগিয়ে রয়েছেন। এমনই মনে করছেন বলিউড ক্রিটিকরা।

ক্যারিয়ারের উঠতি সময়ে পরিচালক আব্বাস মস্তান ‘আজনবি’-র শুটিং শুরু করেন বেবো। সেই সময় অক্ষয় কুমার এবং ববি দেওলের সঙ্গে কারিনা এবং বিপাশাকেও কাস্ট করেন পরিচালক।

কিন্তু, সিনেমা মুক্তির আগে থেকেই বিপাশা ‘হট’ ফটোশুট পেজ থির-র পাতায় উঠে আসে। সেই সঙ্গে বিপাশার একাধিক ছবিও উঠে আসে সংবাদমাধ্যমের পাতায়।

শোনা যায়, ‘আজনবি’-র শুটিংয়ের সময় বিপাশার ফটোশুট দেখে কারিনার কথা অনেকে ভুলতে শুরু করেন। যা একেবারেই না-পছন্দ ছিল বেবোর। ফলে, সুযোগ পেলেই বিপাশাকে খোঁচা দিতে শুরু করেন কারিনা।

যার ফলে এক সময় শুটিং সেটেই কারিনাকে অপমান করতে শুরু করেন বিপাশা। অপমান সহ্য করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত বিপাশাকে কষিয়ে চড় মারেন কারিনা।

দেখুন সেই ভিডিও…

দুই নায়িকার গন্ডগোলের জেরে শেষ পর্যন্ত ভয়ে ভয়ে শুটিং শেষ করেন আব্বাস মস্তান। আর এরপর থেকেই দুই নায়িকা যেন প্রতিজ্ঞা করেন, ভবিষ্যতে আর কেউ কারও সঙ্গে কাজ করবেন না। এ পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল। এরপর আবার অশান্তি শুরু হয় ‘রেস’-এর শুটিংয়ের সময়।

‘রেস’-এর শুটিং চলাকালীন বিপাশার সঙ্গে সাইফের অনস্ক্রিন জুটি দর্শকদের প্রশংসা পেতে থাকে। শুধু তাই নয়, ওই সিনেমার শুটিংয়ের সময় সাইফের সঙ্গে বিপাশার রসায়ন নিয়েও সরগরম হয়ে ওঠে পেজ থ্রি-র পাতা। আর তখন সবে সবে সইফের ঘরণী হয়ে সংসার শুরু করেন কারিনা।

কিন্তু, বিপাশাকে নিয়ে ওই সময় নবাবের সঙ্গে বেগম সাহেবার ঝামেলা শুরু হয়। কিন্তু, সাইফ নিশ্চিত করেন, যা হচ্ছে, তার পুরোটাই প্রচারের গিমিক। এর সঙ্গে বাস্তবের কোনও মিল নেই।

শোনা যায়, এরপর থেকেই নাকি কারিনা এবং বিপাশা ‘বেস্ট ফ্রেন্ড’ হয়ে যান। ফলে, একটি আইফার অনুষ্ঠানেও দুই নায়িকাকে যেমন শুভেচ্ছা বিনময় করতে দেখা যায়। তেমনি ‘লিপলক’ করতেও যায় দেখা। ওই ছবি প্রকাশ হওয়ার পরই তা ভাইরাল হয়ে যায়।