ক্রীড়াঙ্গন

অবশেষে রংপুরের একাদশে গেইল

প্রথম ম্যাচে খেলতে পারেননি ঢাকায় পৌঁছাতে পৌঁছাতে বিলম্ব হওয়ার কারণে। চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে গেইলহীন রংপুর সেদিন জিততে পারেনি। হেরে গেছে মুশফিকুর রহীমদের সাঁড়াসি বোলিং এবং হিসেবি ব্যাটিংয়ের সামনে।

দ্বিতীয় ম্যাচেও গেইলকে খেলাতে পারেনি রংপুর রাইডার্স। অনাপত্তি পত্র (এনওসি) না আসার কারণে খেলানো যায়নি ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানবকে। এবার সেই বাধাও কেটে গেছে।

রংপুর রাইডার্স সমর্থকদের এবার আর হতাশায় থাকতে হবে না। ক্রিস গেইলের সামনে থেকে খেলতে না পারার সব বাধা কেটে গেছে। তিনি অনায়াসেই মাঠে নামতে পারছেন। তাকে ঘিরেই এবার দল সাজালো রংপুর। ইংলিশ তারকা আলেক্স হেলসকে বসিয়ে রেখে রংপুর একাদশে নিলো গেইলকেই।

গত আসরে গেইল একাই বলতে গেলে রংপুরকে বিপিএলের শিরোপা উপহার দেন। এলিমিনেটর রাউন্ডে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। এরপর সেঞ্চুরি করলেন ফাইনালে। তার খেলা ১৪৬ রানের ওপর ভর করেই ঢাকা ডায়নামাইটসকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মাশরাফি বিন মর্তুজারা।

সেই গেইলকে এবার প্রথম দুই ম্যাচ দেখতে না পারায় হতাশা বিরাজ করছিল রংপুরের সমর্থকদের মনে। অথচ তিনি ঢাকায় এসেছিলেন ৫ জানুয়ারি। অবশেষে আজ তিনি মাঠে নামতে পারছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মত শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিপক্ষে।

রংপুর রাইডার্সের একাদশ

রিলে রুশো, ক্রিস গেইল, মোহাম্মদ মিঠুন, মেহেদী মারূফ, রবি বোপারা, বেনি হাওয়েল, ফরহাদ রেজা, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সোহাগ গাজী, শফিউল ইসলাম, নাজমুল ইসলাম।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স একাদশ

তামিম ইকবাল, এভিন লুইস, ইমরুল কায়েস, স্টিভেন স্মিথ (অধিনায়ক), মেহেদী হাসান, শোয়েব মালিক, এনামুল হক বিজয়, শহিদ আফ্রিদি, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, আবু হায়দার রনি, মোহাম্মদ শহিদ।