সারাদেশ

খাগড়াছড়িতে ৭২ ঘণ্টার হরতাল চলছে

মাইক্রোবাস চালক সজীবের হত্যাকারীদের শাস্তি এবং অপহৃত তিন বাঙালিকে উদ্ধারের দাবিতে খাগড়াছড়িতে ডাকা ৭২ ঘণ্টার হরতাল কর্মসূচি পালন করছে পার্বত্য অধিকার ফোরাম ও পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ।

হরতালের কারণে রোববার সকাল থেকে জেলার দূর পাল্লা ও অভ্যন্তরীণ রুটে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে অধিকাংশ দোকানপাটও। সকালে হরতাল সমর্থকরা সদর উপজেলা পরিষদের সামনে রাস্তায় টায়ার পুড়িয়ে বিক্ষোভ প্রর্দশন করে। এছাড়া বিভিন্ন স্থানে পিকেটিং করতে দেখা গেছে তাদের।

খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাউদ্দিন জানিয়েছেন, হরতালের কারণে যাতে কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে, সে জন্য জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলার মাটিরাঙ্গা থেকে নিখোঁজ তিন বাঙালির মুক্তি ও মাইক্রোবাস চালক সজীবের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের দাবিতে শনিবার কালো পতাকা মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে পার্বত্য অধিকার ফোরাম ও বৃহত্তর পার্বত্য বাঙালি ছাত্র পরিষদ। ওই সমাবেশ থেকেই টানা ৭২ ঘণ্টার হরতালের ডাক দেয় সংগঠন দুটি, যার রোববার সকাল থেকে শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার রাঙ্গামাটিতে দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা। শুক্রবার তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে বেতছড়ি এলাকায় দুর্বৃত্তদের ব্রাশফায়ারে নিহত হন পাঁচজন, যাদের মধ্যে ছিলেন মাইক্রোবাস চালক সজীব।

এর আগে গত ১৬ই এপ্রিল খাগড়াছড়ির মাটিরাঙা উপজেলার বাসিন্দা তিন বাঙালি কাঠ ব্যবসায়ী মো. সালাউদ্দীন, মো. বাহার মিয়া (ড্রাইভার) ও মহরম আলী কাঠ কেনার উদ্দেশ্যে জেলার মহালছড়ির মাইসছড়িতে যাওয়ার পর সেখান থেকে নিখোঁজ হন। ১৯ দিন পরও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি প্রশাসন।

Leave a Reply