আন্তর্জাতিক

আসামে আটক ট্রাকভর্তি কুকুরের গন্তব্য কোথায় ছিল?

বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী ভারতের আসাম রাজ্যে  ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়ার সময় আটক হয়েছে প্রায় ৬০টি কুকুর। ভারতীয় পুলিশ কুকুরগুলো আটক করার পর এগুলোর গন্তব্য কোথায় ছিল তা নিয়েই জল্পনা-কল্পনা করা হচ্ছে।

আসাম থেকে প্রচুর গরু ও গরুর মাংস বাংলাদেশে পাচারের অভিযোগ রয়েছে। কুকুরগুলোকেও গরু কিংবা অন্য কোনো মাংস হিসেবে চালিয়ে দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ।

আসামের নগাঁও জেলার কোলাইবরের কাছেই একটি দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয় ট্রাকটি। তখন দেখা যায় ট্রাকের মধ্যে রয়েছে প্রায় ৬০টি কুকুর।

ভারতের কয়েকটি রাজ্যে পচা মাংস কাণ্ড ঘিরে চলছে জোর তল্লাশি। উঠে আসছে নতুন নতুন তথ্য। এই অবস্থায় আসামের ঘটনা রীতিমতো নড়েচড়ে বসেছে সবাই।

একটি গাড়ির সঙ্গে মিনি ট্রাকটির সংঘর্ষ হয়। আহত ৩ জনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়। ট্রাকটির চালক ও তার সহকারী পালিয়ে যায়। তারপরেই পুলিশ চমকে উঠে দেখে ট্রাকভর্তি ওই কুকুরগুলোকে।

উদ্ধার হওয়া কুকুরগুলোর মধ্যে ৫টি কুকুর মারা গেছে। বাকি কুকুরগুলোকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে তারা।

ভারতের সেই পচা মাংস সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে পাচার করা হয়েছে, এমন তথ্যও মিলেছে। এবার কুকুর উদ্ধারের পর বিষয়টি ভাবিয়ে তুলেছে সবাইকে।

Leave a Reply