রাজনীতি

ধানের শীষের সবাই একাট্টা: রিজভী

ধানের শীষ’ প্রতীকে যারা মনোনয়ন পাচ্ছেন, তাদের পক্ষে নেতা-কর্মীরা ‘একট্টা’ বলে দাবি করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপির চূড়ান্ত মনোনয়ন তালিকা প্রকাশের পর মনোনয়ন না পাওয়াদের সমর্থকদের ক্ষোভ নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে এই দাবি করেন তিনি।

রিজভী বলেন, “মনোনয়ন নিয়ে ছোট-খাটো দুই একটি প্রতিক্রিয়া, এটা কি নতুন কিছু? এটা নতুন নয়। বরং যাদেরকে দেওয়া হয়েছে, তারা অত্যন্ত জনপ্রিয়, তাদের এলাকায় আন্দোলন-সংগ্রাম থেকে শুরু করে এলাকায় তাদের সম্পৃক্ততা অত্যন্ত নিবিড়। যে ধানের শীষের প্রতীক পেয়েছেন, তার সাথে নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ আছেন, থাকবেন।

“আমি বিখ্যাত একজন ব্যক্তির উদ্ধৃতি করে বলছি যে, আনন্দদিনের চাইতে দুঃখ দিনের বন্ধন অনেক দৃঢ়। আমরা দুঃখের মধ্যে আছি, আমরা উৎপীড়নের মধ্যে আছি, আমাদের বন্ধন অত্যন্ত দৃঢ়।”

নয়া পল্টনে শনিবার দুপুরে রিজভীর সংবাদ সম্মেলনের পরপরই চাঁদপুর-১ আসনে মনোনয়ন না পাওয়া কারাবন্দি নেতা আ ন ম এহছানুল হক মিলনের কর্মী-সমর্থকরা বিক্ষোভ করেন। তারা রিজভীর সঙ্গে দেখা করে ক্ষোভের কথাও জানান।

চাঁদপুর-১ আসনে সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মিলনকে না দিয়ে এবার বিএনপি মনোনয়ন দিয়েছে মোশাররফ হোসেনকে।

ইসির আপিলে কারাবন্দি দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্রার্থিতা ফেরত পাবেন বলে সংবাদ সম্মেলনে আশা প্রকাশ করেন রিজভী।

তিনি বলেন, “রিটার্নিং অফিসার অন্যায় ও অবৈধভাবে চেয়ারপারসনের তিনটি মনোনয়নপত্র বাতিল করেছেন। এটা সরকারের ষড়যন্ত্রের অংশ।

“নির্বাচন কমিশনকে বলব, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি ন্যায়বিচার করুন। ইসি সংবিধান ও আইন অনুসরণ করলে এবং বির্তকের উর্ধেব উঠে বিশ্বাসযোগ্য সিদ্ধান্ত নিলে খালেদা জিয়া অবশ্যই প্রার্থিতা ফিরে পাবেন।”

নির্বাচনে ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ নিশ্চিত করতে বিএনপি নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার বন্ধে পদক্ষেপ নিতে ইসির প্রতি আহ্বান জানান রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য নাজমুল হক নান্নু, অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় নেতা মনির হোসেন, মাশুকুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।