সারাদেশ

চুয়াডাঙ্গায় মাঠের মধ্যে দুই লাশ, পাশে অস্ত্র ও মাদক

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় মাদক ‘চোরাকারবারি ও সন্ত্রাসীদের’ দুই পক্ষের গোলাগুলির পর দুইজনের লাশ উদ্ধারের খবর দিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে দামুড়হুদা উপজেলার গোবিন্দহুদা গ্রামের একটি মাঠে এ ঘটনা ঘটে বলে দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাসের ভাষ্য।

তিনি বলছেন, ঘটনাস্থল থেকে দুইজনের লাশের সঙ্গে অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত মোহাম্মদ ঝন্টু (৪০) দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। আর ধুলো হোসেন (৪৩) চারুলিয়া গ্রামের শমসের আলীর ছেলে।

পুলিশ বলছে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের করা মাদক কারবারিদের তালিকায় ঝন্টুর নাম রয়েছে। তার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা রয়েছে থানায়।

আর চারুলিয়ার ‘কুখ্যাত চরমপন্থি’ ধুলোর বিরুদ্ধে ছয়টি হত্যাসহ এক ডজনের বেশি মামলা রয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে ওসি সুকুমার বিশ্বাস বলেন, গোবিন্দহুদা গ্রামে দুই পক্ষের গোলাগুলির খবর পেয়ে রাত ১টার দিকে পুলিশ সেখানে অভিযানে যায়। সেখানে মাঠের মধ্যে ঝন্টু ও ধুলোর গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়।

ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি এলজি, দুই রাউন্ড গুলি, ছয়টি হাতবোমা ও তিন বস্তা ফেন্সিডিল উদ্ধার করেছে বলেও জানান তিনি।

ওসি বলেন, “মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ ও নিজেদের মধ্যে বিরোধে জড়িয়ে গোলাগুলিতে ঝন্টু ও ধুলো নিহত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।