তথ্য-প্রযুক্তি

এশিয়ার পর ইউরোপের বাজারে স্মার্টফোন নিয়ে শাওমি

পশ্চিমা দেশগুলোতে কার্যক্রম বাড়াচ্ছে চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা শাওমি। যুক্তরাজ্য ও ইউরোপের বাজারে ঢুকতে সিকে হাচিসনের সঙ্গে চুক্তি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। গত বছরে স্পেনের বাজারে কার্যক্রম শুরু করার পর ইতিবাচক সাড়া পায় শাওমি।
এখন সিকে হাচিসনের সঙ্গে মিলে ইউরোপের অন্য বাজারগুলোয় স্মার্টফোন বিক্রি করতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।
বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে জানানো হয়, শুরুতে সিকে হাচিসনে টেলিকম প্রতিষ্ঠানের অধীনে যুক্তরাজ্যে তিনটি দোকান খুলবে শাওমি। সেখান থেকে শাওমির পণ্য বিক্রি করা হবে। এ ছাড়া থ্রি গ্রুপস স্টোরের মাধ্যমে অস্ট্রিয়া, ডেনমার্ক, হংকং, আয়ারল্যান্ড, ইতালি, সুইডেনের বাজারেও স্মার্টফোন বিক্রি করবে চীনা প্রতিষ্ঠানটি।

যুক্তরাজ্যে থ্রির প্রধান ডিজিটাল কর্মকর্তা বলেন, ‘অনেক দিন ধরেই শাওমির সফলতা দেখছি। প্রতিষ্ঠানটির নানা রকম পণ্যের পোর্টফোলিও মুগ্ধ করার মতো।’

এত দিন এশিয়ার বাজারে আগ্রাসী বিপণনপদ্ধতি নিয়ে কাজ করেছে শাওমি। এবার তারা ইউরোপ ও পশ্চিমা বাজার ধরার চেষ্টা শুরু করেছে। ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রসহ ইউরোপের দেশগুলোয় বিভিন্ন প্রযুক্তিপণ্য বিক্রির জন্য অনলাইন শপ চালু করে শাওমি। তবে সেখানে স্মার্টফোন বিক্রি করেনি।

গত বছরে শাওমির চেয়ারম্যান লেই জুন ইউরোপের বাজারে কার্যক্রম শুরু করার ইঙ্গিত দেন। তিনি বলেন, ২০১৮ সালের শেষ দিকে বা ২০১৯ সালের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে আসবে শাওমি। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে অ্যান্ড্রয়েড টিভি সেট-টপ বক্স ‘মি টিভি’ বিক্রি করে শাওমি। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে সফলতার বিষয়টি সেখানকার আইন ও মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের ওপর নির্ভর করছে।

প্রতিযোগিতার বাজারে শাওমি এখন কীভাবে মানিয়ে নেয়, সেটাই দেখার।

Leave a Reply